যুবলীগের বর্ধিত সভা ঘিরে দু’গ্রুফে সংঘর্ষ,আহত-১২

জমিন রিপোর্টঃ লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে পক্ষে-বিপক্ষে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ নুরুল আজিম বাবর এবং ইউনুছ হাওলাদার রুপম সদর (পূর্ব) থানা যুবলীগের প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক সহ ১২ নেতার্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু এবং তার অনুসারীর বিরুদ্ধে। বাবর সহ আহতরা সবাইকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বাগবাড়ি গণকবর ও এলাকার সড়কে এ ঘটনা ঘটে। অপরদিকে এ ঘটনায় আহত জেলা যুবলীগ সভাপতি একে এম সালাহ উদ্দিন টিপু সদর হাসপাতলে চিকিৎসা নেয়।

এদিকে বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে প্রার্থিতা ঘোষণা করায় প্রচার-প্রচারণা চালানোর কারণে হামলা চালানো হয়েছে বলেও অভিযোগ ওঠে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে শহরের সোনার বাংলা চাইনিজ রেস্টুরেন্টে জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা হবে। সেখানে কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হাবিবুর রহমান পবন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম, উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শামছুল ইসলাম পাটওয়ারী ও সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদিন রিগ্যানসহ দলের নেতারা অংশ নেয়। এজন্য অন্তত ১০ জন সাবেক যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা প্রার্থিতা ঘোষণা করে নেতাদের শুভেচ্ছো জানিয়ে শহরে বিলবোর্ড, প্ল্যাকার্ড, ব্যানার-ফেস্টুন করেন। তাদের বরণ করতে বাবর ও রুপম হাওলাদারের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতাদের বরণ করতে রামগঞ্জ-লক্ষ্মীপুর সড়কের পাশে দাঁড়ালে হঠাৎ অর্তকিতভাবে যুবলীগ সভাপতি টিপুর নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিয়োগ করেন আহত নুরুল আজিম বাবর।

হাসপাতালে আহত নুরুল আজিম বাবর কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, বিএনপি জামাত অর্ধঘোষিত লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করতে যাদের সাথে জীবন যৌবনের মায়া ত্যাগ করে আন্দোলন সংগ্রাম করেছি। আজ তারাই আমাকে পিঠিয়ে আহত করেছে। বিএনপি জামাতের মিথ্যা মামলা আমি দীর্ঘ ১৯টি বছর কারাবরণ করেছি। এটিই কি আমার প্রতিদান। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ আওয়ামী নেতৃবৃন্দ্রের নিকট প্রার্থনা এই হামলা সুষ্ঠ তদন্ত করে টিপুর সন্ত্রাসীদের হাত থেকে আমাদেরকে বাঁচান।

এ ব্যাপারে জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু বলেন, বাবরের সঙ্গে আমার কথাপোকথন হওয়ার একপর্যায়ে তারা আমার কর্মীদের উপর হামলা চালায়।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিপন বড়ুয়া বলেন, অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে শহরজুড়ে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।