মেম্বার নিল কানের দুল,ভাতিজার বিশ হাজার (কড)

জমিন রিপোর্টার: ছেলে-মেয়েকে টেপে ফেলে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চররুহিতা ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মনিরুল ইসলাম নিয়েছে কানের দুল ও তাঁর ভাতিজা জাবেদ নিয়েছে ২০,০০০ হাজার টাকা । আর তাদের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগিরা।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাত ২টার দিকে চররুহিতা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে ছোট পাওয়ারী বাড়ীর সংলগ্ন ইকবাল হোসেন নজিরের বসত ঘরে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, নজিরের স্ত্রীর দাওয়াতে মেয়ের শুশুর বাড়ীর ২০/২৫ মেহমান তার শুক্রবারে বাড়ীতে আসে। মেহমানদারির পরে ৫জন থেকে বাকীরা চলে যায়। রাত ২টার দিকে দরজার পিটানোতে ঘুম ভেঙ্গে যায়। দরজা খুলে দিলে মিয়াজ্জিলি বাড়ীর জাবেদ ও শফিক ঘরে ঢুকে মেহমানদের কে মারধর করে এবং হুমকী দিয়ে বলে এখানে তোরা অবৈধ কাজ করতে আসছ। এখন যদি আমাদের কথা না শুন তাহলে পুলিশে দিব। এর পর আত্মসম্মানের ভয়ে জাবেদ এর প্রস্তাবে রাজি হই। জাবেদ ৫০,০০০ টাকা দাবি করলে ২০,০০০ টাকা সংগ্রহ করে জাবেদকে দিই, তারপর জাবেদ ও শফিক টাকা পেয়ে মেহমানদের চলে যেতে বলেন।

এরপর শনিবার ভোরে স্থানীয় ইউপি সদস্য মুনিরউল্যাহ এসে মেয়েকে হুমকী দিয়ে বলে, আমি এলাকার প্রতিনিধি, আমার সাথে মিট না করে কোন সমাধান কাজে আসবেনা। আমার জন্য কিছু কর নতুবা পুলিশ ডাকবো। কোন উপায় না পেয়ে মেয়ের সাথে থাকা একমাত্র সম্বল কানের জিনিসি গুলো তার হাতে দিলে সে জিনিস নিয়ে চলে যায়।

নজিরের স্ত্রী কান্নাজনিত কন্ঠে বলেন, জমি ক্রয় করে এই এলাকা এসেছি এবং ওদের বাড়ীতে মেয়ে বিয়ে দিয়েছি তাদের সাথে কোন ভাবে আমরা পারবোনা। তারা এলাকার সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। তাই আমরা তাদের বিরুদ্ধে কোন কথা বলতে পারিনা। কারন তারা যে কোন মুহুত্বে আমাদের অপূরনীয় ক্ষতি সাধন করিবে।

স্থানীয় এলাকাবাসি বলেন ইউপি মেম্বার মনির উল্যাহ ও জাবেদ শফিক এলাকার খারাপ প্রকৃতির লোক। তাদের কাজ হলো কাকে কখন বিপদে পেলে টাকা কামাই করবে। মনির উল্যার বিরুদ্ধে রয়েছে নানান অনিয়মের অভিযোগ নারী নির্যাতন, ভাতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে নিরিহ নারীদের চরিত্র হনন, মামলা হামলা কারাবরণ তার নিত্যদিনে ব্যাপার।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য মনির ্উল্যাহ জাবেদ এর সাথে যোগযোগ করলে তারা বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এই বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির পাটওয়ারী মুঠোফোনে বলেন এ বিষয়টি কেউ তাকে জানাইনি। তবে খোঁজ খবর নিয়ে ঘটনার সাথে কেই জড়িত থাকলে প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।