আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইউচুফের বিরুদ্ধে ভূমি দখলের অভিযোগ

জমিন রিপোর্ট ঃ লক্ষ্মীপুরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিরোধী পক্ষের জমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে কোটি টাকার জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে লক্ষ্মীপুর ওয়েলকাম চাইনিজ রেষ্ঠুরেন্টের সতাত্বধিকারী ইউচুফের বিরুদ্ধে।

৫ অক্টোবর রোজ মঙ্গলবার সকালে বাঞ্চানগর ওয়েলকাম রেষ্টুরেন্টের সামনে লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে জমি দখলের উৎসবে মেতে উঠেছে ইউচুফ গং এমনি দাবি করছেন ভূক্তভোগি সালেহ আহমেদ ও আহছান উল্লাহ গংরা ।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিরোধীয় জমিতে সীমানা প্রাচীর ও পুকুর ভরাটের কাজ চলছে এমনি অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যায় লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার (এ এসআই) বাবুল।
১৩ অক্টোবর রোজ বুধবার গভীর রাতে বিরোধীয় ভূমিতে বালু ভরাট ও ওয়াল নির্মানের কাজ শুরু করে ইউচুফ গং এমনি দাবি করছেন ভূক্তভোগি সালেহ আহমেদ ও আহছান উল্লাহ গংরা ।
তারই পরিপ্রেক্ষিতে ১৪ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যায় সদর থানার এস আই কামাল উদ্দিন।

ভূক্তভোগি সালেহ আহমেদ ও আহছানউল্লা জানান, ৬৩ নং বাঞ্চানগর মোজায় এস,এ ১৯৩৫ নং খতিয়ানভুক্ত ৩৯৮৪ দাগ ও আর, এস ১৫৪৮ নং খতিয়ানভুক্ত ৭৭৫০ দাগ অন্দরে ৩১ শতাংশ জমিতে সীমানা নির্ধারণ না করে পুকুরপাড় ও চলাচলের রাস্তা পারিবারিক ভাবে ব্যবহার করে আসছি অপর দিকে মজিবুল হকের পুত্র হেদায়েত উল্যা ও তার ছেলে ইউসুফ, আনোয়ার, রবিন, ইসমাইল হোসেন নেতৃত্বে ৪০/৫০ জন উশংখল যুবক নিয়ে উক্ত জমি দখলের চেষ্ট চালায়। এনিয়ে সালেহ আহমেদ বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মিছ ৬০৩/২১ ইং দায়ের করে। আদালত লক্ষ্মীপুর সদর থানা পুলিশের মাধ্যমে বিরোধপূর্ণ জমিতে উভয় পক্ষকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নিমিত্তে ১৪৪ ধারা জারি করে।
মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) সকালে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে ইউসুফ গং তাদের লোকজন বিরোধপূর্ণ জমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ বালুভরাট করলে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত সদর-লক্ষ্মীপুর, বিবাদী ইউচুফ গংদের বিরুদ্ধে ১৮৮ ধারায় বিধান মতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার নিমিত্তে বিশেষ প্রার্থনার আবেদন করেন বাদী পক্ষ সালেহ আহমেদ । বিষয়টি তদন্ত করে সঠিক প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করিতে ওসি সদর থানাকে নির্দেশনা প্রদান করেন আদালত।
সীমানা প্রাচীর নির্মাণের বিষয়ে ইউসুফ বলেন,আমাদের জায়গায় আমরা সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করছি । কাগজপত্রের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন তার বাবার কাছে সকল কাগজপত্র রয়েছে।

এসআই কামাল জানান, সীমানা প্রাচীর নির্মানের কাজ বন্ধ রয়েছে। কেউ আইন ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনাস্থলে যা পেয়েছি সঠিক প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করা হবে।