অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় ৭জনের বিরুদ্ধে মামলা ॥ গ্রামবাসির মানববন্ধন

 

জমিন প্রতিবেদক ঃ আমার ছেলেকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। অন্যায় ও অসামাজিক কার্যকলাপের সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় উল্টো ষড়যন্ত্র মূলক চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে আমার ছেলের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন অসামাজিক কাজে জড়িত আমেনা বেগম (২৫)। মামলা নং ৫৮। তারিখ ২৭/০৫/২০২১ইং।

আজ ৬ জুন শনিবার বিকাল ৪টায় লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা ৫নং পার্বতী নগর ইউনিয়নের ওয়েদপুর ও মহেষপুর গ্রামবাসির আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন ভুক্তভোগি ফারভিন আক্তার, ইয়াসমিন আক্তার, কুলছুম, ঝর্না বেগম, কুহিনুর বেগম, তাছলিমা আক্তার।

মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন, স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তি ইসমাইল মিঝি, আবুল কাশেম, সোয়েব সিদ্দিকি, মো: ফরহাদুল ইসলাম, ডাক্তার আবুল কাশেম, মোহাম্মদ তছলিম, আব্দুল কাদের সহ প্রমূখ।

মানববন্ধনে বক্তরা বলেন , পাশবর্তী আলি রাজা পাটওয়ারি বাড়ীর প্রবাসি সুমনের স্ত্রী আমেনা বেগম দীর্ঘদিন থেকে ফয়সাল নামে এক যুবকের সাথে অনৈতিক কাজ করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ২৬ মে রাত ৯টা দিকে ফয়সাল সাথে অনৈতিক কাজ জড়িয়ে পড়ে আমেনা বেগম। বিষয়টি জানাজানি হলে আমেনার ঘরের চারপাশ ঘিরে পেলে গ্রামবাসি। খবর পেয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ফয়সাল ও আনোয়ার বেগম সহ স্থানীয় কয়েকজন যুবক থানায় নিয়ে যায় । পরবর্তীতে জানতে পারি প্রবাসির স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বাদি হয়ে ঘটনার প্রতিবাদকারী জুয়েল, মিরাজ, সাইফুল ইসলাম, শরিফ, রায়হান, মাহফুজুর রহমান, বাবু হৃদয় সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।

এসময় উপস্থিত ইমদাদুল হক জানান, আমেনা বেগম চরিত্রহীন। ৩ মাস পূর্বে অসামাজিক কাজে ধরা পড়ে মুচলেকা দিয়ে পার পেয়ে যায়। এ মহিলা নিরিহ মানুষদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে নিজের কুকর্ম ডেকে রাখতে চায়।

অনুষ্ঠিত মানবন্ধনে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করে সুশীল সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বলেন. সমাজে অ-সামাজিক কাজে লিপ্ত ব্যক্তির দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি ও নিরিহ গ্রামবাসির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় পুলিশ হয়রানি বন্ধ এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানান তাঁরা।