লক্ষ্মীপুরে সড়ক ও জনপথ ৫২ লাখ টাকার গার্ডওয়াল নির্মাণে পুকুর চুরি

  1. সবুজ জমিন: লক্ষ্মীপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের লক্ষ্মীপুর রায়পুর মহাসড়কের দালাল বাজার খোয়া সাগর সংলগ্ন প্রায় 62 লাখ টাকার গার্ডওয়াল নির্মাণে  পুকুর চুরির অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগে সড়ক ও জনপদ অফিসের কেছু অসাধু কর্মকর্তাদের 

যোগসাজশে ঠিকাদার গাইড ওয়াল নিম্নমানের ইট, ৬ ইঞ্চি সিসিতে মাত্র তিন ইঞ্চি সিসি

বালুর সাথে সিমেন্ট কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, সড়ক ও জনপদের একটি প্যাকেজের অর্ন্তভুক্ত 48 ইঞ্চি প্রস্থ, 3 মিটার উচ্চতায় এবং ৫০০ দৈর্ঘ্যরে গাইড ওয়াল নির্মাণের কাজ ( ৫২ লাখ টাকার ) কাজ পায় মেসার্স আমিনুল হক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। তার নিয়োজিত সাইট মিস্ত্রি কবির হোসেন সিডিউল বহির্ভুতভাবে সিসি ঢালাই কম দিয়েই ইটের গাতনি তুলে ফেলেন।

এলাবাসীর অভিযোগে সড়ক ও জনপদের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোজাম্মেল হক বুধবার নিম্মমানের কাজের সত্যতা পেয়ে তাৎক্ষণিক কাজ বন্ধ করে দেন এবং উপস্থিত শ্রমিকদেরকে বলেন  ৬ ইঞ্চি সি সি সম্পুন্ন করে গাতনি করার জন্য কিন্তু কর্মরত শ্রমিকরা উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোজাম্মেল হকের নির্দেশনা অমান্য করে গাতনি নির্মাণের কাজ শুরু করেন।

সরেজমিনে গেলে এলাকার নুরুল হুদা, সুজন রহমান, আমির হোসেন, রফিক হোসেন প্রমুখ অভিযোগ করেন গার্ডওয়ালের নির্মাণ কাজের শুরুতেই ঠিকাদারের লোকজন অনিয়ম শুরু করেন। নিছে  সিসি ঢালাই নাম মাত্র দিয়ে নিম্মমানের ইট ও বালু দিয়ে গাতনি করেহ কিন্তু এখন ঠিকাদারের মিস্ত্রিরা নামমাত্র সিমেন্ট দিয়ে কাজ করছে। এতে দেয়ালটি বেশিদিন টিকবে না। কিছু দিনের মধ্যে গার্ডওয়ালটি পাশের পুকুরে মূখ থুবড়ে পড়ার আশংকা রয়েছে।

লক্ষীপুর সড়ক ও জনপদের নির্বাহী প্রকৌশলী সুব্রত দত্ত জানান গার্ডওয়াল নির্মাণের অভিযোগ এসেছে আমি সরেজমিনে গিয়ে পরিদর্শন করব এবং সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মোঃ আনোয়ার হোসেন আকন্দ সবুজ জমিন কে জানান গার্ডওয়াল নির্মাণে  যে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে বিষয়টি গুরুত্বের সহিত দেখা হবে।