দোকান বরাদ্দ অনিয়মে সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রির্পোটার : নকশাবহির্ভূত দোকান বরাদ্দ দিয়ে ৩৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে করা মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পিবিআইকে আগামী ৩১ জানুয়ারির মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন আদালত।

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমাম আজ বুধবার এই আদেশ দেন। প্রথম আলোকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী আতিকুর রহমান খান।

মামলায় সাঈদ খোকন ছাড়া যে ছয়জনকে আসামি করা হয়েছে, তাঁরা হলেন ঢাকার দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ইউসুফ আলী সরদার, সাবেক উপসহকারী প্রকৌশলী মো. মাজেদ, কামরুল হাসান, হেলেনা আক্তার, আতিকুর রহমান ও ওয়ালিদ।

মামলার বাদী ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২-এর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি দেলোয়ার হোসেন। বাদীর আইনজীবী নাহিদ ইসলাম চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, নকশাবহির্ভূত দোকান বরাদ্দ দিয়ে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ডিএসসিসির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনসহ সাতজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলাটি করা হয়। মামলার আবেদনে ২৭ জনকে সাক্ষী রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মামলাটি নেওয়ার জন্য গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার আদালতে আবেদন করেন দেলোয়ার হোসেন। এদিন আদালত আবেদনকারীর জবানবন্দি রেকর্ড করেন। আজ আদালত আদেশ দিলেন।

মামলার আরজিতে বাদী দেলোয়ার দাবি করেছেন, ডিএসসিসির সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনসহ অন্য আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২-এ নকশাবহির্ভূত স্থাপনা তৈরি করে দোকান বরাদ্দের ঘোষণা দেন। এর মাধ্যমে আসামিরা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সঙ্গে প্রতারণা করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

শেখ ফজলে নূর তাপস ডিএসসিসির মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর নানা অভিযোগে করপোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তার পদ থেকে ইউসুফ আলী সরদারকে চাকরিচ্যুত করেন। পরে উপসহকারী প্রকৌশলী মো. মাজেদকেও অনিয়মের দায়ে চাকরিচ্যুত করা হয়।

নকশাবহির্ভূত দোকান উচ্ছেদে ৮ ডিসেম্বর থেকে ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২-এ অভিযান চালাচ্ছে ডিএসসিসি। অভিযানের প্রথম দিন দোকানিরা পুলিশ ও করপোরেশনের কর্মকর্তাদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়েছিলেন।

ডিএসসিসি বলছে, এই মার্কেটে নকশা অনুযায়ী ২ হাজার ২৮২টি দোকান ছিল। গত কয়েক বছরে সেখানে নকশাবহির্ভূত ৯১১টি দোকান তৈরি করা হয়েছে। অবশ্য করপোরেশনেরই কয়েকজন কর্মকর্তা বলেছেন, এই মার্কেটে নকশাবহির্ভূত দোকানের সংখ্যা দেড় হাজারের মতো হবে।