সমাজের অনিয়ম দূর করতে ইমামদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ -ডিজি আনিস মাহমুদ

সবুজ জমিন প্রতিবেদক: ইমামদের মর্যাদা রাষ্ট্রপতির মর্যাদার সমান। মদ,গাঁজা, ইয়াবা, অসামাজিক কার্যকলাপ, বাল্যবিবাহ যৌতুক বিরাজমান অনিয়ম অন্যায় কাজ গুলো সমাজ থেকে দুর করতে ইমাম সাহেবদের ভূমিকা অতীব গুরুত্বপূর্ণ। একজন ইমাম ইচ্চা করলে সমাজের অনেক পরিবর্তন ঘটাতে পারে। পূর্বের ইমামগণ যেমনীভাবে মসজিদে কিংবা পথে ঘাটে চায়ের দোকানে মুসলমানদের মাঝে ইসলামের দাওয়াত দিতেন। এখন এটি একবারে কম দেখা যায়। তাই প্রতিটি মসজিদে সাপ্তাহে একদিন করে হলেও ঘন্টাখানেক স্থানীয় যুবক ও মুরুব্বীদের নিয়ে কোরআন ও সুন্নাহ মোতাবেক উপরোক্ত বিষয়ে আলোচনা করার নির্দেশ দেন । ০৯ আগস্ট রবিবার লক্ষ্মীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে ০৫ দিনব্যাপি রিফ্রেসার্স প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী কালে জেলার ইমামদের উদ্দের্শে এসব কথা বলেন অনুষ্টানের প্রধান অতিথি ইসলামিক ফাউন্ডেশন মহা-পরিচালক আনিস মাহমুদ।

এসময় প্রধান অতিথি আরো বলেন ১৫ আগস্টে জাতির জনক শেখ মুজিব ও তার পরিবারের নিহতদের জন্য প্রতিটি মসজিদে দোয়ার আয়োজন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্র্র্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেন।
লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক সফিউজ্জামান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন সমম্বয় বিভাগ পরিচালক মুহাম্মদ মহীউদ্দীন মজুমদার। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি পরিচালক মো.আনিসুজ্জামান সিকদার,
এই সময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন লক্ষ্মীপুর ইসলামি ফাউন্ডেশন উপ পরিচালক আশেকুর রহমান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন লক্ষ্মীপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশন সহকারী পরিচালক আনোয়ার হোসেন ।
অনুষ্ঠান শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে এবং করোনা ভাইরাস থেকে দেশবাসির মুক্তি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেক হায়াত কামনা করে দোয়া করা হয়। এতে মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল মোতালেব।