ত্যাগি কর্মীরা দু মুঠো ভাত পায়না : সুবিধাভোগীরা কোটিপতি :পিংকু

সবুজ জমিন প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার সারা দেশের ন্যায় লক্ষ্মীপুরে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করেছে এবং রানিং শত শত কোটি টাকার কাজ চলছে। কিন্তু সরকারী স্ব স্ব প্রতিষ্টানের কিছু কর্মকর্তারা পার্সেন্টেজ এর বিনিময়ে সুবিধাভোগিদের সাথে হাত মিলিয়ে উন্নয়ন মূলক কাজ না করেই কোটি কোটি টাকা পকেটস্থ করে সরকারের বিশাল অর্জনকে ম্লান করে দিচ্ছে ।

গত ১০ বছরের আমলনামা দেখেন অনেক নেতার টিনের ঘর ছিল না এখন তারা কোটি কোটি টাকার মালিক। অথচ দীর্ঘদিন সরকার ক্ষমাতা থাকার পরও তৃণমূল ত্যাগি আওয়ামী নেতা কর্মীরা দু’মুঠো ভাত পায়না অথচ সুবিধাভোগীরা গাড়ী বাড়ীর মালিক। সোমবার সকালে নিউ মার্কেট এর তৃতীয় তলায় লক্ষ্মীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মিয়া মোঃ গোলাম ফারুক পিংকু।

এসময় তিনি সাংবাদিক উদ্দেশ্য বলেন, লক্ষ্মীপুরের সকল অনিয়মগুলো জনসম্মুখে তুলে ধরুন। সে সাথে সরকারের উন্নয়ন চিত্রগুলোও জনগনকে জানান। এলজিডি, সড়ক ও জনপথ বিভাগে ব্যাপক অনিয়ন এবং দুর্নীতি হচ্ছে। এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে লিখুন। প্রয়োজনে আমরা সহযোগিতা করবো। আমি যদি অনিয়ম করি আমার বিরুদ্ধে লিখুন। আমার কোন আপত্তি থাকবে না।

লক্ষ্মীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের কার্যালয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আফজাল হোসেনের সবুজের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান ফরহাদের পরিচালনায় এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ফরিদা ইয়াসমীন লিকা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি জেলা শাখার সভাপতি এম ছাবির আহমদ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি শাহজাহান কামাল, সাবেক যুবলীগ নেতা সৈয়দ সাইফুল হাসান পলাশ। রিপোর্টার্স ক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি মফিজুর রহমান মাস্টার, যুগ্ন সম্পাদক রিয়াজ মাহমুদ বিনু, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক, কোষাধ্যক্ষ ভাস্কর বসু রায় চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক রাজিব হোসেন রাজু, ক্রিয়া ও সমাজ কল্যান সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মো: ইউচুফ, নির্বাহি সদস্য রাকিব হোসেন, কিশোর কুমার দত্ত। এছাড়াও লক্ষ্মীপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের অন্যান্য সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।