ফেয়ার ডায়াগনস্টিক কর্মচারীদের হামলায় সাংবাদিক দম্পতি আহত

সবুজ জমিন প্রতিবেদক: লক্ষ্মীপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাংবাদিকের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে শহরের ফেয়ার ডায়াগনস্টিক এর লোকজনের বিরুদ্ধে।

লক্ষ্মীপুর শহরের কলেজ রোডস্থ ফেয়ার ডায়ানিষ্টিক সেন্টারে বুধবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে। এতে সাংবাদিকসহ স্ত্রী ও শিশু সন্তান আহত হয়।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সদস্য আহম্মদ আলী বুধবার সকালে ১০টায় শিশু আপনান (১০) কে শিশু ডাক্তার মোর্শেদ আলম হিরুর কাছে চিকিৎসার জন্য সিরিয়াল দেয়। কিন্তু বিকাল ৪টা অতিবাহিত হওয়ার পরও এবং সিরিয়াল মোতাবেক রুগী না দেখিয়ে টাকার বিনিময়ে অন্য রুগীকে দেখানোর কারন জানতে চায় অপেক্ষমান রোগীরা। পরে অপেক্ষমান সাংবাদিক মুক্ত খবরের জেলা প্রতিনিধি আহম্মদ আলী সাংবাদিক পরিচয় দিলে তাকে তুচ্ছতাছিল্ল করে অশ্লালীন ভাষায় গালমন্দ করতে থাকে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের লোকজন। এক পযার্য়ে তর্কবির্তকের মধ্যদিয়ে ঐ প্রতিষ্ঠানের মালিক পক্ষ ফরহাদের নেতৃত্বে তার কর্মচারী দিয়ে সাংবাদিক, তার স্ত্রী ও শিশু সন্তানকে এলোপাতাড়ি মেরে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয় ২ কর্মচারীকে আটক করে। মালিক ফরহাদ পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে অপরাধীর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেন প্রেস ক্লাবের নেতৃবৃন্দ সহ জেলায় কর্মরত সাংবাদিক।

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে শিবলু ও বোরহান উদ্দিন সবুজ কে আটক করা হয়েছে। সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।