বিজয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ

বিজয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক রহিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ 
________________________________________________
 স্টাফ রিপোর্টার-লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বিজয় নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের  শিক্ষার্থীদের সাথে শিক্ষক আব্দুর রহিমের অশোভন আচরনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিক্ষার্থীদের সাথে তার অশোভন ও সাম্প্রদায়িক বক্তব্যের জের ধরে বিদ্যালয় ও পাশ্ববর্তী এলাকায় তোলপাড় চলছে বলে জানাযায়।
 বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবরে শিক্ষক আব্দুর রহিমের বিরুদ্ধে সনাতনী শিক্ষার্থীদেরকে কটুক্তি মূলক আচরণের কারনে একটি লিখিত অভিযোগ গত ২৪ সেপ্টেম্বর স্কুল চলাকালীন সময়ে দেয়া হয়। এতে জানাগেছে,
বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর সনাতনী ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে গত ১৭ সেপ্টেম্বর উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহিম শ্রেনী কক্ষে গিয়ে বলে, কইরে ডেডা গুন কইরে, ডেডা গুন কিয়রছ রে,ডেডাগুন আছত নি, এই ধরনের কুটুক্তী কু রুচি পূর্ন কথা ও দৃষ্টিকটু দেহভঙ্গি শিক্ষক আব্দুর রহিম পূর্বেও বহুবার করায় এবং বলায়   শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ বিরাজ করছে বলে  কয়েকজন অভিভাবক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়। এই বিষয়ে একজন শিক্ষার্থীনি বলেন, এমন যদি হয় শিক্ষকের আচরন তা হলে আমরা  শিক্ষার্থীরা এমন শিক্ষক থেকে কি শিক্ষা নেবো ?
আমাদের এপ্রতিবেদক সরেজমিনে বিজয়নগর উচ্চবিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষিকা সহ কয়েকজন শিক্ষার্থীদের সাথে আলাপকালে এশিক্ষক আব্দুর রহিম সমন্ধে অনেক না জানা তথ্য বেরিয়ে আসে,  যাহা একজন শিক্ষকের নিকট কাহারো কাম্য নহে।
আরো জানাযায় গত ৩০ সেপ্টেম্বর লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার  আইনশৃঙ্খলা মাসিক সভায় বাংলাদেশ যুব ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পূজা উদযাপন পরিষদ, লক্ষ্মীপুর জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিমুল সাহা বলেন, শিক্ষক হবেন অভিভাবক, শিক্ষার্থীরা এই শিক্ষক থেকে সুশিক্ষায় দীক্ষিত হয়ে এসমাজ থেকে সকল অশনি সংকেত মোচন করে পরিচ্ছন্ন সমাজ উপহার দিবে কিন্তু যদি শিক্ষক নিজেই তার চরিত্রের বিকল্প দিকগুলো শ্রেণি কক্ষে প্রদর্শন করেন, তাহলে বিষয়টি দুঃখ জনক ছাড়া কিছুই নয়।
এবিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রহিমের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ রুপে সাজানো নাটক, আমি একজন শিক্ষক হিসাবে শ্রেণীকক্ষে শিক্ষার্থীদের সাথে যেরুপ আচরণ করা উচিত, সেইমোতাবেকই আচরণ করি, এর বাহিরে কিছুই নয় বলে তিনি জানান।
স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফকরুল ইসলাম স্যারের নিকট লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক আব্দুর রহিমের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করা হয়েছে এবং এই বিষয়ে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি এডভোকেট জসিম সাহেব সহ ২ অক্টোবর বিকালে  বসে আগামী তিন কর্ম দিবষের মধ্যে অভিযোগের বিষয়ে শিক্ষক আব্দুর রহিম কে কারন দর্শানোর জন্য বলা হয়েছে বলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফকরুল ইসলাম ৩ অক্টোবর গণমাধ্যমকে জানান।
উপরোক্ত বিষয়ে লক্ষ্মীপুর জেলা শিক্ষা অফিসার সরিৎ কুমার চাকমা মহোদয়ের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই, যেহেতু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা প্রধান শিক্ষকের নিকট লিখিত অভিযোগ করেছে, উনি তদন্তআন্তে প্রচলিত আইনানুগ ব্যবস্থা নিবেন বলে আমার বিশ্বাষ নচেৎ অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে এপ্রতিবেদক কে  নিশ্চয়তা প্রদান করেন।