হাইব্রীড ও দুর্নীতিবাজদের উদ্দেশ্য অভিযান চলবে : কাদের

 

হাইব্রীড ও দুর্নীতিবাজদের উদ্দেশ্য অভিযান চলবে : কাদের

সবুজ জমিন : নীতিশ বড়ুয়া, (নোয়াখালী-৫) প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযান শুধু ঢাকায় নয়, সারাদেশে চলবে। এই অভিযানে কোন অপরাধী রেহাই পাবে না। টেন্ডারবাজ, চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ, মাদক ব্যাবসায়ি, সন্ত্রাসীরা যে যেখানে থাকো কেন সাবধান হয়ে যাও।

শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। এই অ্যাকশন সারাদেশে চলবে। তিনি বলেন, একটা খারাপ কাজ দশটা উন্নয়নকে ম্লান করে দিতে পারে। কাজেই আমরা এটা হতে দিতে পারি না। গত ২১ সেপ্টেম্বর (শনিবার) কক্সবাজার গল্ফ মাঠে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সম্মেলন প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরী বলেন, আমাদের নেত্রী অনেক পরিশ্রম, দূরদর্শিতা, সততার মাধ্যমে দেশ পরিচালনা করে বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে অনন্য একটি উচ্চ লেভেলে নিয়ে গেছেন। সেই বাংলাদেশ এবং দলের সম্মান-ইজ্জত রক্ষার জন্য এই দলের যেকোন অপরাধে জড়িত যে কাউকেই শাস্তি দেয়া হবে। সেই লক্ষ্য নিয়ে শেখ হাসিনা এগিয়ে যাচ্ছে। হাইব্রীড ও দুর্নীতিবাজদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা শেখ হাসিনাকে নেতা মানেন আপনাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, দলের ও সরকারের ভাবমূর্তি আরও উজ্জল করার জন্য দলের মধ্যে আগাছা- পরগাছা পরিস্কার করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে দল। এব্যাপারে শেখ হাসিনা জিরো ট্রলারেন্স নীতি নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে।

অপকর্ম-অপরাধ যেই করুক না কেন, যত বড় প্রভাবশালী, টাকাওয়ালা, ক্ষমতাশালী হোক না কেন কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। প্রতিনিধি সম্মেলনে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকবেন। চারদিকে ষড়যন্ত্রের গন্ধ আছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ আছে। এই দেশের বিরোধী দল আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে ব্যর্থ, জনগণের সাড়া না পেয়ে এখন তারা ষড়যন্ত্রের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

শেখ হাসিনার জনপ্রিয় সরকারকে হটানোর জন্য তারা চক্রান্ত করছে। কাজেই আমি আপনাদেরকে আহ্বান করবো যেকোন মূল্যে দলের সংকট-সন্ধিক্ষণে জাতীয় সম্মেলনকে সামনে রেখে আপনারা সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবেন। কলহ, কোন্দল পরিহার করে আওয়ামী লীগকে এক রাখবেন। নেতাকর্মীরাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রাণ। কর্মীরাই আওয়ামী লীগকে বাঁচিয়ে রেখেছে, তারাই দুঃসময়ে আওয়ামী লীগের শক্তি।

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

সম্মেলনে কক্সবাজারের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল, সাংসদ জাফর আলম, সাংসদ আশেক উল্লাহ রফিক, সাবেক সাংসদ আব্দুর রহমান বদি, সাবেক সাংসদ অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে তৃণমূল আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয়, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহের, জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম সিকদার, জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি আয়েশা সিরাজ, রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল মাবুদ, টেকনাফ উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোনা আলী প্রমুখ।

কক্সবাজারের সকল উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ সকল স্তরের নেতাকর্মীদের অংশ গ্রহনে জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিনিধি সম্মেলন জনসভায় রূপদেয়।