লক্ষ্মীপুরে শিল্পী হত্যার বর্ণনা দেন হত্যাকারী দেবর

প্রেশ বিজ্ঞপ্তি: বিগত ২৭-০৩-২০১৯খ্রি. তারিখ রাতে লক্ষ্মীপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ মোসলেহ উদ্দিন এর নেতৃত্বে একটি চৌকস টিম কর্তৃক ভবানীগঞ্জ চরভূতা গ্রামের গৃহবধু হত্যা মামলার মূল আসামী দেবর মোঃ নিরব (২০)সহ শ্বশুর মুসলিম মিয়া (৫৫) এবং শ্বাশুড়ি হাজরা বেগম (৪৫) দেরকে গোপন সূত্রের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে নোয়াখালী এবং কুমিল্লা জেলা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘাতক দেবর নিরব হত্

যাকান্ডে তার নিজের সম্পৃক্ততার কথা অকপটে স্বীকার পূর্বক ঘটনার পূর্ণাঙ্গ বিবরণ দেয়। আসামী নিরব এর স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত কাঠের তৈরী ভারী হাতপাখা ঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় মামলার ভিকটিম শিল্পী এবং আসামী নিরব আপন দেবর-ভাবী। এছাড়া মুসলিম মিয়া ও হাজরা বেগম যথাক্রমে ভিকটিম এর শ্বশুর ও শাশুড়ী। ঘটনার দিন ০৬-০২-২০১৯খ্রি. তারিখ দুপুর বেলা ভিকটিম এর ০৪ (চার) বছরের ছেলে শিপনকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঘাতক দেবর নিরব ঘরে থাকা হাতপাখা দিয়ে ভিকটিম এর মাথায় উপর্যুপরি মারাত্মকভাবে আঘাতসহ তলপেটে লাথি মারে। যার ফলশ্রুতিতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। বিগত ০৬-০২-২০১৯খ্রি. তারিখে ভিকটিমের বড় ভাই আমির হোসেন বাদী হয়ে উল্লেখিত আসামীদের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।