লক্ষ্মীপুর সদর ইউএনও শাজাহান আলির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে ভূমিদস্যুদের বাঁচাতে সত্যকে আড়াল করে গোপনে একতরফা অসত্য প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করার প্রতিবাদে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শাজাহান আলির বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন আলী রাজা ওয়াকফ্ এষ্টেট পরিচালনা কমিটি। (আজ) সোমবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে সম্পাদক ও প্রকাশক পরিষদ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আলী রাজা ওয়াকফ্ এষ্টেট পরিচালনা কমিটি সদস্য জাহাঙ্গীর আলম জানান, ওয়াকফ্ অস্বীকারকারি ভূমিদস্যু অব্দুর রব ও বোরহান উদ্দিন গংদের নেতৃত্বে একদল ভূমিদস্যু এস্টেটের ভূমিতে অবৈধ ভাবে ঢুকে লুটপাট, গাছ কেটে নিয়ে যাওয়া, ওয়াকফ কমিটির সদস্যদের উপর হামলা ও ভূয়া কমিটি দেখিয়ে এষ্টেেেটর মসজিদের ব্যাংক একাউন্ট (সোনালি ব্যাংক, রাখারিয়া বাজার শাখা ) থেকে ২ লক্ষ টাক আতœসাৎ করেন। এ ঘটনায় তিনি নিজে বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে একটি (সি আর নং ৬১৬/২০১৮) মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদনে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলেও প্রতিবেদনে টাকার বিষয় উল্লেখ না থাকায়, বাদীর নারাজির কারণে অধিকতর তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাজাহান আলীকে তদন্তের নির্দেশ দেন বিজ্ঞ আদালত।


সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করে জানান, এষ্টেটের অর্থ আতœসাতকারি মূলহোতা বিবাদী বোরহান উদ্দিন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সাবেক যুগ্ন সচিব হওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ শাজাহান আলি বিবাদী বোরহান উদ্দিন কর্তৃক প্রভাবিত হইয়া প্রকৃত সত্যকে আড়াল করতে ঘটনাস্থলে না গিয়ে ও মামলার বাদীকে কোন প্রকার নোটিশ প্রদান না করেই সত্যের বিপরীতে গোপনীয় ভাবে মনগড়া একতরফা একটি প্রতিবেদন বিজ্ঞ আদালতে দাখিল করেন। উক্ত প্রতিবেদনের ভিক্তিতে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি খারিজ করে দেন। এতে ওয়াকফ এষ্টেটের নিরাপত্তা চরম ভাবে বিঘিœত হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন জাহাঙ্গীর আলম। এঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ওয়াকফ এষ্টেট কমিটির সেক্রেটারি/ মোতাওয়াল্লি নুর আলম বাহার, সহ সভাপতি নুর হোসেন পাটওয়ারী, কোষাধক্ষ্য হাজী সাইফুল্লাাহ মাস্টার, সদস্য বকুল পাটওয়ারী।